Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes
Home / অন্যান্য / লাইফস্টাইল / অফিসে যেন হুটহাট প্রবল ঘুমভাব দেখা দেয় !

অফিসে যেন হুটহাট প্রবল ঘুমভাব দেখা দেয় !

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

অফিসে কাজের চাপে ও হাজারো ব্যস্ততার মাঝে হুড়মুড় করে চোখ ভেঙে ঘুম আসার সমস্যার মুখোমুখি হতে হয় প্রতিটি কর্মজীবী মানুষকে।

বিশেষ করে দুপুরে খাওয়ার পর চেয়ারে সোজা হয়ে বসে থাকার জন্য যেন রীতিমত যুদ্ধ করা লাগে। ক্লান্তি ও অবসাদের জন্য এমন ঘুমভাব দেখা দেওয়া অস্বাভাবিক কোন বিষয় নয়। তবে অফিসে প্রতিনিয়ত এই সমস্যার মুখোমুখি হতে হলে একটু ভাবার প্রয়োজন আছে।

সপ্তাহে কিংবা মাসে কয়েকদিন এমন ক্লান্তিভাব ও ঘুমভাব দেখা দিতেই পারে। কিন্তু বিষয়টি নিয়মিত ঘটলে বুঝতে হবে- এর পেছনে শারীরিক অথবা মানসিক লুকায়িত কোন সমস্যা রয়েছে, যা সহজে ধরা পড়ছে না। এমনটা হলে ডাক্তারের পরামর্শে সঠিক পরীক্ষা করানো প্রয়োজন।

তবে অফিসে যেন হুটহাট প্রবল ঘুমভাব দেখা না দেয় তার জন্য নিজের প্রতি কিছুটা সচেতন হতে হবে। ঘুমভাব দেখা না দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হতে পারে সবচেয়ে উপযোগী।

মেডিটেশন করা
অফিসে কাজ শুরু করার আগে মিনিট দশেক মেডিটেশন করা হলে দিনভর চাঙ্গা থাকা সম্ভব হবে। মেডিটেশন শুধু মনকে শান্ত ও রিল্যাক্স করতেই নয়, মনোযোগ বাড়াতে ও চনমনে থাকতেও সাহায্য করে। মেডিটেশনের সময় অবশ্যই খেয়াল করে সোজা হয়ে বসতে হবে এবং ভালোভাবে নিঃশ্বাস নিতে হবে।

ঘুমাতে হবে ঠিকঠাক
রাতে ঘুমের অনিয়মটাই মূলত, অফিসে ঘুম আসার প্রধান কারণ। রাতে অবশ্যই আগেভাগে ঘুমিয়ে পড়ার অভ্যাস করতে হবে। শরীর যদি ক্লান্ত থাকে ও ঘুমের অভাব থাকে, তবে অফিসে কাজ করার জন্য পর্যাপ্ত শক্তি পাবে না এবং হালকা কাজের পরেই ক্লান্তি থেকে ঘুমভাব দেখা দিবে। প্রতিদিন রাতে অন্তত ৭-৮ ঘন্টা ভালোভাবে ঘুমাতে পারলে, অফিসে ঘুমভাবের জন্য বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হবে না।

খাওয়ার বিষয়ে সতর্ক
অফিসে কী খাচ্ছেন তার উপরেও কিন্তু নির্ভর করে ঘুমভাব দেখা দিচ্ছে কিনা। অবশ্যই নিজেকে সচল রাখতে ও ক্ষুধাভাব দূর করতে সময়ে সময়ে খাবার খেতেই হবে। তবে চেষ্টা করতে হবে পুষ্টিকর খাবার পরিমিত পরিমাণে খাওয়ার জন্য। ভারি ঘরানার খাবার পেট ভরে খাওয়ার পর স্বাভাবিকভাবেই ঘুম্বভাব দেখা দেয়। একইসাথে চেষ্টা করতে হবে তৈলাক্ত খাবার এড়িয়ে যাওয়ার জন্য।

টুথপেস্ট হোক পিপারমেন্টের
পিপারমেন্টে থাকা প্রাকৃতিক ফ্রেশ স্বাদ ও গন্ধ সকালে ঘুমভাব তাড়াতে ও দিনভর ফ্রেশ রাখতে কাজ করে। তাই টুথপেস্ট হিসেবে বেছে নিতে হবে পিপারমেন্টযুক্ত টুথপেস্ট। এছাড়া অফিসে দ্রুত ঘুমভাব দূর করতে পিপারমেন্ট টি পান হতে পারে সবচেয়ে ভালো উপায়।

হাঁটাচলা করা
অফিসে কোনভাবেই ঘুমভাব না কাটলে চেয়ার ছেড়ে উঠে অফিসের ভেতরেই হাঁটাহাঁটি করতে হবে কিছুক্ষণ। সবচেয়ে ভালো হয় অফিস থেকে বেরিয়ে বাইরে হাঁটাহাঁটি করতে পারলে। রোদের আলোতে ঘুমভাব নষ্ট হয়ে যায়।

 

সব সময় আপডেট নিউজ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন- সবুজ বিডি ২৪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শীতের তীব্রতায় শিশুর পরিচর্যা

লাইফস্টাইল ডেস্ক : দেশজুড়ে বয়ে যাচ্ছে মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ, তাপমাত্রা কমছে প্রতিদিনই। শীতের তীব্রতায় ...