Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes
Home / ক্রাইম নিউজ / কেন এতো আলোচনায় ভিকারুন্নেসা?

কেন এতো আলোচনায় ভিকারুন্নেসা?

অফিস ডেস্ক:

ভিকারুননিসা নূন স্কুলের প্রধান শাখার শিক্ষার্থী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার জের ধরে অবশেষে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষসহ তিন শিক্ষককে বরখাস্ত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে অভিভাবককে ডেকে শিক্ষকের অপমান ও ছাত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায়  ভিকারুন্নেসার এমপিও বাতিলের নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করাসহ আইনগত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার ঘটনায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন দ্রুততম সময়ে দাখিল করেছে। তদন্ত প্রতিবেদন এই তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। বুধবার ৫ ডিসেম্বর ২০১৮ দুপুরে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

অভিযুক্ত তিন শিক্ষক হলেন-ভিকারুননিসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, প্রভাতী শাখার প্রধান জিন্নাত আরা এবং শ্রেণী শিক্ষক হাসনা হেনা।

উল্লেখ্য যে, আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগে অরিত্রীর বাবা দিলীপ অধিকারীর দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে এই শিক্ষকদের আসামি করা হয়েছিল।

অভিযোগ আছে যে, ভর্তিবাণিজ্য, মামলার ফাঁদে ফেলে স্কুলের বিশাল জমি দখল করে রাখা ফখরুদ্দিন বিরিয়ানির কাছ থেকে পাওয়া টাকার বখরা ছাড়াও নানা অনৈতিক সুবিধা পাওয়ার আশায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল ঘিরে একটি দুষ্টুচক্র খুব শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। তারা রাষ্ট্রের বিভিন্ন পাওয়ার ফ্যাক্টরকে ব্যাল্যান্স করে অনৈতিক বাণিজ্য করছেন। নিন্দুকেরা বলেন যে, সেবার জন্য ভিকারুননিসা নূন স্কুলের গভর্নিং বডির মেম্বার হতেই নাকি লাগে ৩ কোটি টাকা। তাই স্কুলে নিয়োগ, নির্মাণ থেকে আরাম্ভ করে ভর্তিসহ সবখানেই ‘বিশেষ বাণিজ্যে’র ছোঁয়া।

 

সব সময় আপডেট নিউজ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন- সবুজ বিডি ২৪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

টেকনাফের ডনঃ ইয়াবা ব্যবসায়ী সাইফুল আত্মসমর্পণ করছেন

ক্রাইন নিউজ: টেকনাফের ডন হিসেবে খ্যাত ইয়াবা ব্যবসায়ী হিসেবে তালিকায় থাকা এক নম্বর আসামি সাইফুল ...