শনিবার , নভেম্বর 17 2018
হোম / সারাদেশ / বিনা পয়সায় পড়ান সোহাগ : এটাই স্বপ্ন
Shohag Tching Vola

বিনা পয়সায় পড়ান সোহাগ : এটাই স্বপ্ন

ভোলা, নিজস্ব প্রতিনিধি :

প্রতিনিয়তই ব্যাঙের ছাতার মত ঘরে উঠছে দেশের আনাছে কানাছে, পাড়াই মহল্লায় ক্ষুদ্র সময়ের বৃহৎ, মাঝারি আর ছোট ছোট আকারের পড়াশুনা নামের কোচিং বানিজ্য। স্কুল কিংবা, কলজে প্রাইভেট নামের সেই বানিজ্যে অংশগ্রহন ব্যাতিত পাশ করা যেন দুস্কর হয়ে পড়েছে আজকের সময়ের ছাত্র/ছাত্রীদের । বিষয় প্রতি দিতে হচ্ছে ৫০০-২০০০ টাকার পযর্ন্ত এবং কিছু ক্ষেত্রে তার ও বেশি। ক্লাস না করলে সমস্যা নেই কিন্তুু প্রাইভেট যদি ক্লাস টিচারের কাছে না পড়া হয় তবেই দিতে হয় অকৃতকার্যের খেশারত । যার অসংখ্য নজির প্রতিনিয়তই ঘটছে আমাদের সভ্য সমাজের শিক্ষা প্রতিষ্টানগুলোতে ! আর মাঝখান থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন কোচিং নামের বানিজ্য কেন্দ্র খুলে আমাদের মানুষ গড়ার কারিগর শ্রদ্ধেয় শিক্ষকবৃন্দ ।

সেই দিক থেকে একটু ব্যতিক্রম মোঃ সোহাগের শিক্ষা কেন্দ্র । বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার গঙ্গাপুরের জয়া গ্রামে । পড়াশুনা অনার্স ৩য় বর্ষ । ছোটবেলা থেকেই মেধাবী সোহাগ ভাবতেন বড় হয়ে একজন আদর্শ শিক্ষক হবেন । গরিব ও মেধাবিদের নিজের সাধ্যমত সহযোগীতা করে যাবেন । জীবনের কেবল শুরু মোঃ সোহাগের অপরদিকে নিজেই এখনও ছাএ । তবুও বাস্তবায়িত করছেন ছোটবেলা থেকে দেখে আসা স্বপ্নগুলো। গ্রাম ও আশপাশের ৩০ জন ছাত্র/ছাত্রীদের এক অন্যরকম অভিবাবক মোঃ সোহাগ । ৪র্থ থেকে ১০ শ্রেনী পর্যন্ত প্রায় ৩০ জন ছাত্র/ছাত্রীদের বিনা টাকায় ৪ বছর ধরে পড়াচ্ছেন মিঃ সোহাগ । প্রত্যক্ষ দর্শনে দেখা যায় ছোট্র একটি টিনের ঘরে শিক্ষার সকল উপকরন সহ ছাত্র/ছাত্রীরা অবস্থান করছেন ।

কথা হয় মোঃ সোহাগের সাথে । জানতে চাওয়া হয় কত জন ছাত্র/ছাত্রী এখানে পড়ছে উত্তরে সোহাগ জানান এখানে সকাল বিকাল ২ টি ব্যাচে মোট ৩০ ছাত্র/ছাত্রী পড়ানো হয় যাদের কাছ থেকে নেওয়া হয়না কোন অর্থ । এর মধ্যে যারা মেধাবি গরিব তাদের জন্য রয়েছে বিনা পয়সায় কিছু শিক্ষা উপকরন । কোথা থেকে এ সকল খরচ আসে এর জবাবে মোঃ সোহাগ জানান প্রতিদিন আমি সন্ধ্যার পর ইলেকট্রিক্যাল ও ভাড়াই হোন্ডা চালাই তা থেকে যে অর্থ আসে তা দিয়ে ই প্রতি মাসে পড়ার কক্ষ ভাড়া ও শিক্ষা উপকরনের যোগান চলে আসে । খুব ছোট কক্ষ তাছাড়া বাজারের সাথে ই এর অবস্থান এতে কি ছাত্র/ছাত্রীদের মনোযোগে কোন সমস্য হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নে সোহাগ জানান সমস্যা তো একটু হয় ই কিন্তু এই মহূর্তে সামার্থ্যর ও চিন্তা করতে হবে ইচ্ছা থাকা সত্বেও নির্জন স্থানে বা বড় কক্ষ নিতে পাড়ছি না যেহেতু আমি নিজেই একজন ছাএ । এতে কোন প্রতিবন্ধকতা আছে কিনা এর জবাবে সোহাগ জানান এখানে সকল ছাত্র/ছাত্রী আমার কাছে পড়তে আগ্রহী এবং আমিও যত দিন পারব বিনা পয়সায় আমি ওদের এইটুকু সহায়তা করে যাবো ইনশাআল্লাহ।

জনপ্রিয় পোষ্ট আপনার ভাল লাগতে পারে দেখুন “সবুজ বিডি ২৪“ এর সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

ফুলপুরে তাক্ওয়া অসহায় সেবা সংস্থা’র পক্ষ থেকে প্রতিবন্ধীদের নিয়ে বিনোদন মূলক অনুষ্ঠান। 

তপু রায়হান রাব্বি,ফুলপুর(ময়মনসিংহ)প্রতিনিধিঃ  ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার আজ ২৬ অক্টোবর রোজ শুক্রবার বিকাল ৩ টায় ৬নং …

2 মতামত

  1. Gddddd…..

    Arokom Koyekjon Manus Dese Thakle deshe R #Sikhar ovab hobe Naaaaaa

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।