Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes
Home / অর্থ-বানিজ্য / শেষ সময়ে ‘কাড়াকাড়ি অফারে’ সরগরম বাণিজ্যমেলা

শেষ সময়ে ‘কাড়াকাড়ি অফারে’ সরগরম বাণিজ্যমেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

মাসব্যাপী ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার শুক্রবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) শেষ হওয়ার কথা ছিল। পরে মেলা কর্তৃপক্ষ তা আরও একদিন বাড়িয়ে তা শনিবার (০৯ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত করেছে। শেষ সময়ে নিজ নিজ স্টলের পণ্য বিক্রি করতে দেওয়া হচ্ছে কাড়াকাড়ি অফার। স্টলভেদে চলছে ১৫ থেকে ৬০ শতাংশ পর্যন্ত ডিসকাউন্ট। কোনো কোনো পণ্য একটি কিনলে আবার আরেকটি মিলছে সম্পূর্ণ ফ্রিতে।

মেলা ঘুরে দেখা গেছে, স্টল মালিকদের দেওয়া ছাড় আর অফারগুলো লুফে নিচ্ছেন ক্রেতারা। এদিন সকাল থেকে প্রতিটি স্টলে ছিল ক্রেতা-দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়। ক্রেতাদের ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে স্টল কর্তৃপক্ষকে।

মেয়েদের পোশাকের একটি স্টলে থ্রি পিচ বিক্রি হচ্ছে ৫৯৯ টাকায়। এছাড়া নারীদের যেকোনো পণ্য পাওয়া যাচ্ছে ১ হাজার টাকার ভেতরে। স্টলটিতে কথা হয় মেলায় আসা সাবরিনা সাবার সঙ্গে তিনি বলেন, দাম কম পণ্য ভালো এটাই চাই আমরা। মধ্যবিত্তদের কাছে একটা ভালো পণ্যই যথেষ্ট। এছাড়া সকল পণ্যের ওপর মেলায় অফার চলছে। তাই শেষ মুহূর্তে এসে মেলা থেকে প্রয়োজনীয় কিছু পণ্য কিনেছি।

মেলায় ব্লেজারে চলছে ধামাকা অফার। যেখানে মেলার শুরুতে ২৫০০-৩০০০ টাকায় ব্লেজার বিক্রি হয়েছে সেখানে এখন ১ হাজার টাকায় ব্লেজার বিক্রি হচ্ছে। টিএস ফ্যাশানের ম্যানেজার এ বিষয়ে বলেন, শুরুতে ২৫শ’ বা ৩ হাজার টাকায় ব্লেজার বিক্রি করলেও এখন প্রতি পিচ ১ হাজার টাকায় বিক্রি করছি। এই অফার দেওয়ায় আমরা সবচেয়ে বেশি বিক্রি করতে পেরেছি।

এদিকে, প্লাস্টিকের পণ্যে চলছে ২০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়। মেলায় ১০ হাজার টাকার বেশি পণ্য কিনলে ২০ শতাংশ, ৫ হাজার টাকার বেশি পণ্য কিনলে ২৫ শতাংশ ও ২ হাজার টাকার বেশি পণ্য কিনলে ১২ শতাংশ ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

কথা হয় সরকারি চাকরিজীবী হুমায়ুন কবিরের সঙ্গে। তিনি বলেন, প্লাস্টিকের একটি ওয়্যারড্রব কিনলাম। ১৫ শতাংশ ছাড় পেয়েছি। সব সময় এমন ছাড় পেলে আমাদের জন্য ভালো। আমরা সরকারি ছোট চাকরি করি। সাধ থাকলেও সাধ্য কি আর আমাদের আছে। তাই, ছোট ছোট ইচ্ছাগুলো পূরণ করতেই মেলায় আসা।

প্লাস্টিক পণ্যের এক স্টলের সেলস ম্যানেজার রোকন আহমেদ বলেন, মেলায় কেনাবেচা সকাল থেকেই ভালো। শেষ দিকে এসে আমাদের সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে। আমাদের পন্য অনেক ভালো। তাই ক্রেতাদের চাহিদা পূরণেও আমরা বদ্ধপরিকর। তবে, মেলা এক সপ্তাহ পরে শুরু হওয়ায় কেনাবেচা একটু কম হয়েছে বলেও তিনি জানান।

এদিকে, হোমটেক্সটাইলের পণ্যের ওপর চলছে ব্যাপক অফার। মেলায় এমন একটি স্টলে ২ হাজার টাকার চাদর ১২শ’ টাকা, ১ হাজার টাকার চাদর ৫শ’ টাকা, ৩৬শ’ টাকার বেড কভার ২৫শ’ টাকা। এছাড়া যেকোনো পণ্য কিনলেই ২০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে।

অফার সম্পর্কে স্টলটির ম্যামেজার মো রনি বলেন, আমরা হোমটেক্সের পণ্যের ওপর দ্বিগুণ অফার দিয়েছি। শুরুতেই আমরা যেসব পণ্য দ্বিগুণ দামে সেল করেছি সেগুলো এখন অর্ধেক দামে বিক্রি করছি। বৃহস্পতিবার আমরা ২০ লাখ টাকার পণ্য বিক্রি করেছি। যে অফার দিচ্ছি তাতে ক্রেতারা খুশি।

মেলায় গুড়া মসলায় চলছে অল ইন ওয়ান অফার। ১ হাজার টাকার এক বক্সে ১২টা আইটেম পাওয়া যাচ্ছে। যা আগে ছিলো ১২৫০ টাকা। কথা হয় গৃহিণী রাবেয়া বেগমের সঙ্গে তিনি বলেন, মেলায় গুড়া মসলায় দারুণ ছাড়। ১২টা মসলা একসাথে পাচ্ছি। সাথে একটা বড় বক্সও রয়েছে। সব মিলিয়ে অফারটা দারুণ।

মেলার একটি স্টলে যেকোনো ফ্রিজ কিনলেই নগদ টাকাসহ ওভেন ফ্রি। সেজন্য মেলায় শার্প ফ্রিজের প্যাভিলিয়নে ভিড় বেশি। এখানে সবচেয়ে বড় ফ্রিজে ২৫ হাজার টাকা ছাড় সাথে ওভেন ফ্রি। এছাড়া যেকোনো পণ্যে ৩ থেকে ১০ হাজার টাকার ছাড় দেওয়া হচ্ছে।একই সাথে হোম ডেলিভারি ফ্রি।

উল্লেখ্য, এবারের মেলায় প্যাভিলিয়ন, মিনি-প্যাভিলিয়ন, রেস্তোরাঁ ও স্টলের মোট সংখ্যা ৬০৫টি। এর মধ্যে প্যাভিলিয়ন ১১০টি, মিনি-প্যাভিলিয়ন ৮৩টি ও রেস্তোরাঁসহ অন্যান্য স্টল রয়েছে ৪১২টি। বাংলাদেশ ছাড়াও ২৫টি দেশের ৫২ প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিয়েছে।

সব সময় আপডেট নিউজ পেতে আমাদের সাথেই থাকুন- সবুজ বিডি ২৪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বিশ্বের দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির তালিকার পাঁচে বাংলাদেশ

অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক: বিশ্বব্যাংক এক প্রতিবেদনে বাংলাদেশকে বিশ্বের শীর্ষ পাঁচ দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির একটি ...